ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১০:২৪ অপরাহ্ন
ফেনীর সোনাগাজীতে ৭ মাস পর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে ধর্ষক গ্রেফতার
দেলোয়ার হোসেন, ফেনী

৭ মাস পর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ও আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলায় আসামি মোঃ ইউসুফ ওরফে নয়ন (৩০)কে  গ্রেফতার করেছে সোনাগাজী মডেল থানার পুলিশ। সে সোনাগাজী বগাদানা ইউনিয়নের বাসিন্দা।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) দুপুরে ফেনীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ খানের আদালতে সে নিজেকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান, গত বছরের ২৮ নভেম্বর দুপুরে সোনাগাজীতে নিজের ঘরে বিবি কুলসুম আত্মহত্যা করলে তার অভিভাবক থানায় অপমৃত্যুর মামলা করে। কিন্তু ময়নাতদন্তে ওই কিশোরীর গর্ভে থাকা পাঁচ মাসের সন্তানের অস্তিত্ত্ব পাওয়া যায়। তথ্যবিহীন এ মামলায় সন্দেহশতঃ নয়নের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এ বছরের ২৯ জুন প্রাপ্ত ডিএনএ প্রতিবেদনে শনাক্ত হয়, উক্ত কিশোরীর গর্ভে সন্তান নয়নের।

পুলিশ আরো জানান, উপজেলার মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের মঙ্গলকান্দি এলাকার নুর আমিনের বাড়ীতে প্রতিদিন রাতে সিএনজি রাখত আবু ইউসুফ। এরই মধ্যে তার মেয়ে বিবি কুলসুমের সঙ্গে সিএনজি চালক আবু ইউসুফের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর আবু ইউসুফ বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করে।

বিবি কুলসুমের বাবা নুর আমিন বলেন, আবু ইউসুফের সঙ্গে তাঁর মেয়ের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়টি তিনি জানতেন না। কি কারণে তার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে পরিবারে কেউ সে বিষয়ে অবগত ছিলেন না। ময়না তদন্তের পর তিনি জানতে পারেন তার মেয়ে মৃত্যুর আগে ৫ মাসের অন্তসত্ত্বা ছিল। পরে তিনি মামলা করলে পুলিশ তদন্ত করে ডিএনে পরিক্ষার মাধ্যমে ৭ মাস পর ইউসুফ কে  চিহ্নিত করে। কুলসুমের বাবা ইউসুফের ফাঁসির দাবী জানান।

One response to “ফেনীর সোনাগাজীতে ৭ মাস পর ডিএনএ পরীক্ষার মাধ্যমে ধর্ষক গ্রেফতার”

  1. … [Trackback]

    […] Find More here to that Topic: doinikdak.com/news/31522 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x