ঢাকা, শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন
ডিএসসিসির অবহেলায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি মহামারীর দিকে যাচ্ছে
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

দেশে চলমান ডেঙ্গু পরিস্থিতি বিপদজনক হয়ে পড়েছে। ডেঙ্গুতে মহামারী হলে নগরের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে। এই আশংকায় ডেঙ্গুর মহামারী প্রতিরোধের অব্যবস্থাপনা ও কার্যকর ভুমিকা নেই দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের এ নিয়ে প্রশ্ন   তুলেছেন পুরান ঢাকার সুত্রাপুরবাসী।

আজ মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় পুরান ঢাকার ৯১ নবাবপুর রোড প্রাঙ্গনে সুত্রাপুর এলাকার পক্ষে ব্যবসায়ী, কর্মচারী ও বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী জনসমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল আয়োজন করে।

সমাবেশে বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী বাংলাদেশ ইলেক্ট্রিক মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সদস্য শাহাদাত হোসেন মিকো বলেন- করোনা মহামারীর বিপর্যস্থ জনজীবন কাটিয়ে উঠতেই আবার মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে আবির্ভূত হয়েছ ডেঙ্গু। দেশে এখন প্রতিদিন ডেঙ্গুর সংক্রমণ ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে চলেছে। দেশে ডেঙ্গু ও ডেঙ্গুর উপসর্গ নিয়ে আক্রান্তে সংখ্যা দশ হাজার ছাড়িছে। শুধু মাত্র দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অব্যবস্থাপনা ও যথাযথ পদক্ষেপ না নেয়ার কারণে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মহামারীর দিকে গিয়েছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্শন করে তিনি আরো বলেন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি পুরান ঢাকার মানুষের প্রতি একটু দৃষ্টি দিন। ঢাকার মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই। করোনার মহামারীতে সারাদেশ এমনিতেই নাকাল। এর সাথে নতুন করে যোগ হয়েছে ডেঙ্গুর প্রভাব। কিন্তু এসব নিয়ে নগর প্রশাসনের কোন মাথাব্যাথা নেই। ঢাকাবাসীর জীবনের প্রতি মেয়রের এতো অনীহা কেন? আমরা এর প্রতীকার চাই।

শিশু সাহিত্যিক ও চিত্রাঙ্কন শিল্পী সাইফুল্লাহ নবীন দক্ষিন সিটি মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের কড়া সমালোচনা করে বলেন- মশার উপদ্রব; ময়লা-আবর্জনা এলাকাজুড়ে পড়েছে আছে। এসব পরিষ্কারের কোনো উদ্যোগও নেই। তাই ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে আমাদের। একারণে নগরের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।

স্থানীয় যুবলীগ নেতা বুলবুল হোসেন বলেন, আজ পুরান ঢাকার প্রতিটি ঘরেঘরে ডেঙ্গু ভয়ঙ্কর আকারে ছড়িয়েছে। মেয়র ঠিকমত কাজ করছে না। তিনি ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। আজ ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রনে ব্যর্থ হয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতিতে ঢাকাবাসীকে বিপদের মধ্যে ফেলে দিয়ে আপনার মেয়র ফজলে নূর তাপস পরিবার নিয়ে প্রমোদ ভ্রমণে গেছেন। হয়তো এটা আপনি জানেন না। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে এই মেয়রের পদত্যাগ দাবি করছি।

বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মোহাম্মদ রিয়াজ বলেন, এই মেয়র জনগণের সেবার পরিবর্তে নিজের আখের ও খায়েশ মেটাতে ব্যস্ত। উন্নয়নের নামে বিভিন্ন প্রধান সড়ক ও অলিগলির রাস্তা কেটে ফেলে রাখছে। সে সকল রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে যেমন কষ্টসাধ্য তেমনি এডিস মশা জন্মানোর অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করতেই আজ আমরা রাস্তায় নেমেছি। আপনারা জানেন যে, ঢাকার ঐতিহ্যবহন করে পুরান ঢাকার সুত্রাপুর, সেই ঐতিহ্যবাহী এলাকাই মশার অত্যাচারে বসবাসই অনেক কষ্টকর। আমরা সুত্রাপুরবাসী নিরুপায় হয়ে আজ এই জনসমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের জীবন বাচাঁনোর আবেদন জানাচ্ছি।

সমাবেশে বিক্ষুব্ধ সুত্রাপুর এলাকাবাসীর পক্ষে বক্তব্য রাখেন মানববন্ধনে শিশু সাহিত্যিক ও চিত্রাঙ্কন শিল্পী সাইফুল্লাহ নবীন, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী বাংলাদেশ ইলেক্ট্রিক মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের সদস্য শাহাদাত হোসেন মিকো, মোহাম্মদ রিয়াজ, স্থানীয় যুবলীগ নেতা বুলবুল হোসেন প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল নবাবপুর হয়ে রায় সাহেব বাজার মোড়ে গিয়ে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হওয়ায় মেয়র তাপসের কুশপুত্তলিকা দাহ করেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x