ঢাকা, সোমবার ২০ মার্চ ২০২৩, ০৭:০৪ অপরাহ্ন
স্বপ্নের পদ্মা সেতু: পুরো সড়কপথ এখন দৃশ্যমান
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

স্বপ্নের পদ্মা সেতু। শেষ রোড স্ল্যাবটিও বসানো হয়েছে। এতে পূর্ণাঙ্গ রূপ পেয়েছে পদ্মা সেতুর সড়কপথ। সকাল ১০টার দিকে পদ্মা সেতুর ১২ ও ১৩নং পিলারের ওপরে শেষ স্ল্যাব বসানো হয়েছে। এতে সড়কপথের ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার পূর্ণাঙ্গ রূপ পেয়েছে।

সোমবার (২৩ আগস্ট) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের। তিনি বলেন, ১০টা ১২ মিনিটের সময় সর্বশেষ স্ল্যাবটি বসানো হয়েছে।

এরপর বাকি থাকছে পিচঢালাই। আনুষঙ্গিক কাজ শেষে যানবাহন চলাচলের উপযোগী হয়ে উঠবে। পিচ ঢালাইয়ের কাজ আগামী মাসে শুরু হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছে পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ।
পদ্মা সেতুর সড়কপথ তৈরি শেষ। ২৯১৭টি স্ল্যাবই বসে গেছে। সড়ক তৈরি সম্পন্ন। যান চলাচলে বাকি থাকছে কার্পেটিং। তাই স্ল্যাব বসানোর কাজে নিযোজিতরা বেজায় খুশি।

শ্রমিকরা জানান, তিন শিপটে আমরা কাজ করেছি। রোদবৃষ্টি মাথায় নিয়ে আমরা কাজটা সম্পন্ন করেছি।  

গত ২০ জুন ২ হাজার ৯৫৯টির সব কটি রেল স্ল্যাব বসে গেছে। আর সেতুতে গ্যাস লাইন বসানো শুরু হয়েছে ১৯ আগস্ট থেকে। সড়কপথের স্ল্যাবগুলো বসানোর অগ্রগতি সেতুর বড় মাইলফলক বলেও জানান প্রকৌশলী, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্প প্রকৌশলী মাহমুদুর রহমান।
পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের পরামর্শক শায়েখ বিন হোসাইন বলেন, আমরা চেষ্টা করেছি কোয়ালিটি ও সেফটি মেইনটেন্যান্স করা। এখানে কাজ করে সাকসেসফুল হয়েছি।  

স্ল্যাবগুলো স্থাপন শুরু হয় ২০১৯ সালের ১৯ মার্চ।
পদ্মা সেতু সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জুলাই মাস পর্যন্ত সেতু প্রকল্পের সার্বিক কাজ এগিয়েছে ৮৭ দশমিক ২৫ শতাংশ। আর মূল সেতুর কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৯৪ দশমিক ২৫ শতাংশ। অর্থাৎ মূল সেতুর কাজের আর বাকি মাত্র ৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ। আর্থিক অগ্রগতি হয়েছে (ব্যয়) ৯০ দশমিক ১৮ শতাংশ। মূল সেতুর কাজের চুক্তি মূল্য প্রায় ১২ হাজার ৪৯৪ কোটি টাকা। চলতি বছরের ৩১ জুলাই পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে প্রায় ১১ হাজার ২৬৮ কোটি টাকা।
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় প্রকল্প পদ্মা সেতুর কাজ ২০১৪ সালের ডিসেম্বর মাসে শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর সেতুর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটির ওপর বসানো হয় প্রথম স্প্যান। এর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হতে থাকে পদ্মা সেতু। ৪২টি পিলারের ওপর ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান একে একে বসানো হয়। সর্বশেষ স্প্যানটি বসানো হয় ২০২০ সালের ১০ ডিসেম্বর। এতে ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু পুরোপুরি দৃশ্যমান হয়েছিল। ২০২২ সালের জুন মাসে পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার কথা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x