ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৮ অপরাহ্ন
বুড়িমার কান্না হাসিতে রূপান্তর করল জমি আছে ঘর নাই প্রকল্প
মোঃ জাকির হোসেন, প্রতিনিধি-লালমনিরহাট

লালমনিরহাট জেলা হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়নে ০৯ নং ওয়ার্ডের খানের বাজার চৈতাপার এলাকায় এক বুড়িমার জীবন কাহিনী।

কোন একদিন কাঁন্না করতে করতে রাস্তা দিয়ে হেটে যাচ্ছিলেন এক বুড়িমা; FSW এর সদস্য জনাব মোঃ আব্দুল কাদের কাঁন্নার কারণ জানতে চাইলে, উত্তরে বুড়িমা জানান; “আমার অনেক কষ্ট! আমার থাকার জন্য একটা ঘর নাই। আমাকে মানুষের বাড়িতে থাকতে হয়। ছেলে-মেয়ের কথা জানতে চাইলে! আমার কোন মেয়ে নাই ।একমাত্র ছেলে অসুস্থ ।একটি ছোট্ট থাকার ঘর আছে সেখানে কোন রকম ছেলে, ছেলে বউ ,নাতি থাকেন। আর একটা রান্না ঘর কোন রকম ছাউনি দেওয়া। বুড়িমার এসব কথা শুনে FSW এর ওই সদস্য ফেসবুক স্ট্যাটাস দেয়। স্ট্যাটাস দেখে সরোজমিনে পরিদর্শন করেন জনাব মোঃ কাওছার রুমি(যুগ্মসাধারণ সম্পাদক-FSW) ও সদস্য জনাব মোঃ হুমাউন কবীর মাসুম; উপজেলা নিবার্হী অফিসার কে বাঁশের সাঁকো নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে বুড়িমার কথা অবগত করেন। তিনি জানান যে, প্রতি ইউনিয়নে ৬ টি করে ঘর বরাদ্দ এসেছে। আপনারা ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করুন। প্রয়াত চেয়ারম্যান ডাক্তার আতিয়ার রহমান এঁর কাছে পরিদর্শনকারীসহ জনাব, মিজানুর রহমান মিলন (কোষাধক্ষ্য-FSW) সদস্য, জনাব মোঃ আব্দূর কাদের, জনাব সাইদুর রহমান, জনাব লিটন হোসেন ও, জনাব আয়নাল হক বিষয়টি উপস্থাপন করলে। তিনি বললেন, নিজস্ব ৬ শতাংশ জমি থাকলে ও সরোজমিনে গিয়ে দেখব যদি পাওয়ার মতো হয় ঘরের ব্যবস্থা করে দেব। পরবর্তী সময়ে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।

আজ “বুড়িমা” সেই ঘরে পর্দাপন করেন। বুড়িমার সেই অসাধারন হাসি সেটা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। আজ যেন মনে হচ্ছে পৃথীবির সব সুখ তার মাঝে বিরাজমান।

One response to “বুড়িমার কান্না হাসিতে রূপান্তর করল জমি আছে ঘর নাই প্রকল্প”

  1. DevOps says:

    … [Trackback]

    […] Info to that Topic: doinikdak.com/news/43560 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x