ঢাকা, মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০২:৪৯ অপরাহ্ন
গণটিকার দ্বিতীয় ডোজেও আগ্রহ, ভোগান্তিও আছে
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আগস্টের শুরুতে দেশজুড়ে গণটিকাদান কর্মসূচিতে প্রথম ডোজ টিকা নিতে যেমন ভিড় দেখা গিয়েছিল, তেমন দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে মানুষের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ ছিল। তবে কোথাও কোথাও ভোগান্তিও দেখা গেছে।

টিকাদান কর্মসূচিতে সম্পৃক্তরা বলছেন, গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে মানুষের মধ্যে বেশ আগ্রহ দেখছেন তারা। টিকাদানে গতি আনতে গত ৭ আগস্ট দেশজুড়ে ছয় দিনের গণটিকাদান কার্যক্রম শুরু করে সরকার।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, তাতে ৫০ লাখ ৭১ হাজার মানুষ টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন। ঢাকায় দ্বিতীয় দফায় গণটিকাদান চলবে ৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এই কর্মসূচির আওতায় প্রথম ডোজ টিকা যারা নিয়েছেন, তারা টিকা নিতে পারবেন।

প্রথম দফায় রাজধানীর কেন্দ্রগুলোতে দিনে ৩৫০ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এবারের কর্মসূচি তিন দিনে নামিয়ে আনায় প্রতিদিন টিকা দেওয়া হবে ৭০০ জনকে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের গণটিকাদান কেন্দ্র পল্লবী কমিউনিটি সেন্টারে ভোর থেকেই টিকা নিতে লাইন শুরু হয়ে যায়। এই কেন্দ্রে টিকা নিতে আসা বেসরকারি চাকরিজীবী রফিকুল ইসলাম বলেন, সারা দিন লাইনে দাঁড়িয়ে তো টিকা নেওয়ার সুযোগ নেই। অফিস করতে হবে। সেজন্য সকাল সকাল আসছি। যাতে ফার্স্ট আওয়ারে চলে যেতে পারি। মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের বাসিন্দা আরিফুল ইসলাম জানান, লাইনে পেছনে থাকলেও প্রথম ডোজের মতো দুশ্চিন্তায় পড়তে হচ্ছে না তাকে। তখন তো অনেক মানুষ লাইনে ছিল। টিকা যে পাব সেটাই ভাবি নাই। এখন তো এত মানুষ আসবে না। আর প্রথম ডোজ যেহেতু নিছি, দ্বিতীয় ডোজ তো দিবেই। লাইনে দাঁড়াতে হচ্ছে, এটাই কষ্ট।

রহিমা আক্তার নামে একজন জানালেন, তাকে মঙ্গলবার টিকা দেয়নি। বলেছে, পরের দিন আসতে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাজ্জাদ হোসেন বলেন, এই কর্মসূচি সম্পর্কে তিনি জানতে পেরেছেন সোমবার সন্ধ্যা ৭টার পর। সেভাবে প্রচার চালাতে না পারলেও ভোর ৬টা থেকেই কেন্দ্রে আসতে শুরু করেছেন টিকাপ্রত্যাশীরা। মানুষের ব্যাপক আগ্রহ দেখছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x