ঢাকা, শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০২ অপরাহ্ন
করোনা: মালয়েশিয়ায় কয়েকশো ডাক্তারের ধর্মঘটের ডাক!
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় হাজার হাজার জুনিয়র ডাক্তার ধর্মঘটে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন। করোনা মহামারির শুরু থেকেই তারা চুক্তিভিত্তিক কাজ করছেন। নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মী না হওয়ায় করোনাকাল শেষে তাদের ক্যারিয়ারে বিশেষ কোনো সুযোগ নেই। তাই দেশটির কয়েকশো জুনিয়র ডাক্তার বেতন ও ভবিষৎ নিশ্চিত করার দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন।

ইতিমধ্যে তাদের বেতন এবং নিয়োগে নতুন শর্ত দেওয়ায় সরকারের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়েছে। অনেক বৈঠকের পরও এর কোনো সমাধান হয়নি। এ জন্য তারা কাজ বন্ধ করে ধর্মঘটে যাওয়ার প্রস্তুতি নিয়েছেন।

এদিকে, দেশটিতে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েই চলেছে। ফলে অতিরিক্ত চাপ নিয়ে কাজ করে স্বাস্থ্যকর্মীরা এখন ধর্মঘটের পথে যাচ্ছেন। মালয়েশিয়ায় গত রবিবার (২৫ জুলাই) করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ১৭ হাজার ৪৫ জন। মারা গেছেন ৯২ জন। ফলে প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিনের সরকারের ওপর ক্রমশ চাপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে ভয়াবহ ছবি ও ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কি ভয়াবহ অবস্থা বিরাজ করছে মালয়েশিয়ার হাসপাতালগুলোতে।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে মৃতদেহ রাখা হয়েছে যেখানে, তা একটি হাসপাতালের স্টোররুম বলে মনে হয়। পাশেই রোগীতে ভর্তি একটি ওয়ার্ড। সেখানে রোগীরা হুইলচেয়ারে বসে আছেন অথবা বাইরে থেকে বেঞ্চ টেনে এনে তার ওপর শুইয়ে রাখা হয়েছে রোগী। অন্যগুলোতে দেখা যাচ্ছে, করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ ধরা পড়ার পর চিকিৎসা কেন্দ্রে রোগীদের লম্বা লাইন। সরকার পরিচালিত কোয়ারেন্টিন সেন্টারগুলোতে উপচেপড়া ভিড়। করোনায় যাদের অবস্থা খারাপ হয়ে পড়েছে তাদেরকে এখানে রাখা হয়েছে।

ধর্মঘটের একজন মুখপাত্র ডা. মুস্তাফা কামাল আজিজ বলেছেন, মহামারি দেখিয়ে দিয়েছে যে, মালয়েশিয়ায় পর্যাপ্ত পরিমাণ চিকিৎসক নেই। আমরা চুক্তিতে কাজ করলেও কাজ করতে করতে নিঃশেষ হয়ে গেছি। ২০১৬ সালে আগের সরকার চুক্তিতে কাজ করানোর পদ্ধতি প্রচলন করে। সূত্র : আলজাজিরা

2 responses to “করোনা: মালয়েশিয়ায় কয়েকশো ডাক্তারের ধর্মঘটের ডাক!”

  1. … [Trackback]

    […] Find More on to that Topic: doinikdak.com/news/40598 […]

  2. … [Trackback]

    […] Here you can find 34599 additional Info on that Topic: doinikdak.com/news/40598 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x