ঢাকা, মঙ্গলবার ১৮ জুন ২০২৪, ০৯:৪৫ পূর্বাহ্ন
যশোরের মনিরামপুরে গলায় ফাঁস লাগানো মাদ্রাসা ছাত্রীর লাশ উদ্ধার
আনোয়ার হোসেন, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

যশোরের মনিরামপুর উপজেলার সুন্দলপুর গ্রামের উমামা খাতুন ( ১৫ ) নামের এক মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্রীর গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করেছে মনিরামপুর থানা পুলিশ। নিহত ছাত্রী উপজেলার সুন্দলপুর গ্রামের হাবিবুরের কন্যা ও মশ্মিম নগর ইউনিয়নের পারখাজুরা এলাকায় অবস্থিত কওমি মাদ্রাসার ছাত্রী।

গতকালশনিবার ( ২১আগস্ট ) সকালে নিজ বাড়ির দোতলায় একটি কক্ষে সিলিং ফ্যানের সাথে ওরনা পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্নহত্যা করেছে বলে জানা যায়।

ঘটনার তথ্য সুত্রে নিহতের স্বজনসহ প্রতিবেশীরা জানান,সকালে মাদ্রাসায় যাওয়ার জন্য দোতালার ঐ কক্ষে যায় উমামা। ঘর হতে বের হতে দেরী হতে দেখে পরিবারের সদস্যরা ঐ রুমে প্রবেশ করে তাকে ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখেন। প্রতিবেশীদের সহযোগীতায় ঐ মাদ্রসা ছাত্রীকে উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মনিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মিজানুর রহমান জানান,আমরা ঐ ছাত্রীকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় পেয়েছি এবং তার গলায় দাগ রয়েছে।

মনিরামপুর থানার এস আই সৌমেন দাস  মাদ্রাসা ছাত্রীর মৃত্যর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলে । জানান,স্থানীয়দের খবরে পুলিশ নিহত ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য যশোর সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছেন। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে এটিকে আত্নহত্যা মনে হচ্ছে। ময়নাতদন্দের রিপোর্টে মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য জানা যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x