ঢাকা, সোমবার ১৭ জুন ২০২৪, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
জেলা পুলিশ, ফরিদপুর–এর  ২৪ ঘন্টার কার্যক্রম সংক্রান্তে প্রেস বিজ্ঞপ্তি
মোঃরিফাত ইসলাম, ফরিদপুরঃ
কোতয়ালী থানা পুলিশ কর্তৃক থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে  ১৯/০৮/২০২১ খ্রিষ্টাব্দ অনুমান ১৩.০০ ঘটিকায় ১৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আসামি মোঃ সবুজ্জামান বিশ্বাস, সাং-চাঁদপুর, শিবরামপুর থানা-কোতয়ালী, জেলা-ফরিদপুরকে গ্রেফতার করা হয়। কোতয়ালী থানায় মামলা রুজুপূর্বক ধৃত আসামিকে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ১১ টি ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তি করা হয়েছে এবং নিয়মিত মামলার ০১ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
সালথা থানা এলাকায় (ঠিকাদার) মোঃ সালাউদ্দিন ওরফে পান্নু(৪৩), পিতা-মৃত আঃ গফুর খান, সাং-বড়খারিদয়া, থানা-সালথা,জেলা-ফরিদপুর সালথা থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় ঠিকাদারী কাজ করে থাকেন। ০৪ টি ভেকু নিয়ে সালথা থানাধীন কাগদী বাওড়ের জলাশয়ের মাটি খনন কাজ করা কালে ১০/০৩/২০২১ খ্রিষ্টাব্দ রোজ বুধবার বিকাল অনুমান ০৫.০০ ঘটিকার সময় আসামী-১। মোঃ বাবুল মাতুব্বর(৪০), পিতা-মৃত আলী মাতুব্বর, সাং-নওপাড়া, থানা-সালথা, জেলা- ফরিদপুরসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৭/৮ জন লোক বাদীর নিকট ১৫(পনের) লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। এক পর্যায়ে বাদীকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখিয়ে নগদ ৫০(পঞ্চাশ) হাজার টাকা এবং ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড এর একটি চেক বই এর  ১টি পাতা জোরপূর্বক স্বাক্ষর করিয়ে নিয়ে যায়। উক্ত ঘটনার প্রেক্ষিতে বাদী থানায় এজাহার দায়ের করলে সালথা থানার মামলা নং-০৭, তারিখ-১২/৮/২১ খ্রিঃ , ধারা-৩৮৫/৩৮৬ পেনাল কোড রুজু হয়।  ১৯/০৮/২১ তারিখ এজাহারনামীয় আসামী মোঃ বাবুল মাতুব্বর(৪০),  পিতা-মৃত আলী মাতুব্বর, সাং-নওপাড়া, থানা-সালথা, জেলা-ফরিদপুরকে গ্রেফতার পূর্বক বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সদরপুর থানা পুলিশ কর্তৃক থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে সদরপুর সিআর ১৪১/২১ এর আসামী নুরজাহান বেগম(৫০), স্বামী – মৃত বছিরউদ্দিন প্রামানিক, সাং দক্ষিন আলমনগর, থানা – সদরপুর, জেলা- ফরিদপুর কে গ্রেফতার করা হয় ধৃত আসামিকে ১৯-০৮-২০২১ খ্রিঃ ফরিদপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। আলফাডাঙ্গা থানা এলাকার  মোঃ বিল্লাল সরদার (৩৩), পিতা- মোঃ মুনজুর সরদার, সাং- বুড়াইচ, থানা- আলফাডাঙ্গা,  জেলা- ফরিদপুর থানায় হাজির হয়ে আসামী ১। আরিফুজ্জামান চাকলাদার (আপেল) (৪১), পিতা- মৃত আঃ কাদের চাকলাদার, সাং- দেউলী, থানা- বোয়ালমারী, (বর্তমান ঠিকানা সাং- আলফাডাঙ্গা, থানা- আলফাডাঙ্গা, জেলা- ফরিদপুর), ২। মোঃ লায়েকুজ্জামান (৫০), পিতা- মৃত আঃ সামাদ, সাং- কোলিমাঝি, থানা- বোয়ালমারী, উভয় জেলা-ফরিদপুরদ্বয়ের বিরুদ্ধে এই মর্মে এজাহার দায়ের করেন যে, গত ১২/০৮/২০২১ খ্রিঃ তারিখে বাদীর ফুফা (ফুফুর স্বামী) মোঃ আরব আলী সরদার, পিতা- মৃত মোতলেব সরদার, সাং- বুড়াইচ, থানা- আলফাডাঙ্গা, জেলা- ফরিদপুরসহ আরো ০৫ জনকে জুয়া খেলার অপরাধে পুলিশ গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করে। পরবর্তীতে বাদী তার ফুফাকে আদালত হতে জামিন করে বাড়ী নিয়ে আসে।  ১৩/০৮/২০২১খ্রিঃ রাত্র অনুমান ০৭.৩০ ঘটিকার সময় উপরোক্ত আসামীদ্বয় সহ অজ্ঞাতনামা ০২ জন লোক বাদীর ফুপা আরব আলীর বাড়ীতে যায়। তখন বাদী তার ঘরে শুয়ে ছিল। বাদী মোটর সাইকেলের শব্দ শুনে উঠানে আসলে উপরোক্ত আসামীদ্বয় বাদীকে ও বাদীর ফুপু ফিরোজা বেগমকে ডেকে বলে যে, আমরা সাংবাদিক, আলফাডাঙ্গা থেকে এসেছি। উপরোক্ত ০১ নং আসামী আরিফুজ্জামান চাকলাদার (আপেল) বাদীর ফুপু কে বলে আপনার স্বামীকে পুলিশ জুয়া খেলার জন্য ধরে কোর্টে চালান দিছে। আমরা আপনাদের সম্মানের কথা চিন্তা করে কোন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করি নাই। আপনারা আমাদের খুশি করলে আমরা আপনার স্বামীর বিরুদ্ধে নিউজ করবো না। বাদী টাকা দিতে অস্বীকার করলে তখন উপরোক্ত আসামীদ্বয় বলে তোমাদের সম্মান বাঁচাতে হলে আমাদেরকে টাকা দিয়ে হাতে রাখতে হবে। তা না হলে আমরা বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করে বাড়ী হতে বের হওয়া বন্ধ করে দিবো, তখন বুঝবেন আমরা কি করতে পারি। বাদী ও বিবাদীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে সাক্ষীসহ আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তারা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। বাদীর উক্তরুপ এজাহারের ভিত্তিতে আলফাডাঙ্গা থানার মামলা  নং- ১১, তারিখ- ১৯/০৮/২০২১ খ্রিঃ,  ধারা- ৪৪৭/৩৮৫/৩৮৭ পেনাল কোড রুজু করা হয়েছে। ভাংগা থানা পুলিশ কর্তৃক শার্শা থানার মামলা নং ৩০ তারিখ ২৫/০১/২১ ধারা ৩৯৯/৪০২ এর পরোয়ানা ভুক্ত আসামী বেলায়েত সিকদার, পিতা: সূর্য শিকদার, সাং পুলিয়া, থানা: ভাংগা, ফরিদপুরকে গ্রেফতার পূর্বক আদালতে প্রেরণ করা হয়।
ফ‌রিদপুর ট্রা‌ফিক বিভাগ কর্তৃক রুজুকৃত মামলার সংখ‌্যা – ১২ টি, নিষ্প‌ত্তিকৃত মামলার সংখ‌্যা- ১৮ টি, আদায় কৃত জর‌মিানার প‌রিম‌ান- ৬০,০০০/- টাকা,আটক স‌ংখ‌্যা- ০৩ টি ইজিবাইক। ফরিদপুর জেলা পুলিশের বিভিন্ন কার্যক্রম, অভিযান পরিচালনায় অর্জন ও সেবাপ্রাপ্তির খবরা-খবর জনগণের সামনে তুলে ধরার লক্ষ্যে ফরিদপুর জেলা পুলিশের প্রতিটি ইউনিট সর্বদা নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x