ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন
ঈদগাঁও এখন স্বপ্নের স্বতন্ত্র উপজেলা
এম আবু হেনা সাগর,ঈদগাঁও

কক্সবাজারের ঈদগাঁও এখন স্বপ্নের উপজেলা হিসেবে অনুমোদন লাভ করে। উপজেলা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যাদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা রয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এলাকার লোকজন।

জানা যায়, কক্সবাজার সদর উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন ঈদগাঁও,ইসলামাবাদ, ইসলামপুর পোকখালী,জালালাবাদকে নিয়ে ঈদগাঁও নামক একটি স্বতন্ত্র ও আলাদা উপজেলা ঘোষণা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চুয়্যাল মাধ্যমে অনুষ্ঠিতব্য প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় নির্বাহী কমিটির (নিকার) ২৬ শে জুলাইয়ের সভায় ঈদগাঁওকে স্বতন্ত্র উপজেলা করার চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য প্রস্তাব উত্থাপিত হয়। এতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও স্বতন্ত্র একটি উপজেলা হিসেবে অনুমোদন দেন ।

আরো জানা যায়, ঈদগাঁওকে উপজেলা গঠনের জন্য বিগত ২২ জুলাই ২০১৯ তারিখ কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কক্সবাজারের মাননীয় জেলা প্রশাসক বরাবর ০৫.২০.২২০০.২২২৪.০২.০৫.২০১৯ স্মারকমূলে প্রস্তাবের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করেন। পরবর্তীতে কক্সবাজারে মাননীয় জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন গত ৩০ জুলাই ২০১৯ তারিখে ০৫.২০.২২০০.১২৬.০০৪.০১১.২০১৯-৩৯৮ স্মারকমূলে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুল মান্নান বরাবর চুড়ান্ত প্রতিবেদন করলে বিভাগীয় কমিশনার গত ৫ আগষ্ট ২০১৯ তারিখে ০৫.৪২.০০০০.০৪১.০৭.০১২.১৯-৪০৭ স্মারকমূলে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর প্রতিবেদন প্রেরণ করেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঈদগাঁও’র কৃতিসন্তান হেলাল উদ্দীন আহমদের আন্তরিক চেষ্টায় দ্রুত সময়ের মধ্যে ঈদগাঁওকে উপজেলা বাস্তবায়নের যাবতীয় দাপ্তরিক কাজ শেষ করে গত ২২ আগষ্ট ২০১৯ তারিখে ৪৬.০৪৬.০১৮.০০.০০.০৬৮.২০১৯-৬৭৪ স্মারক মূলে মন্ত্রী পরিষদ সচিব বরাবর চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করা হয়। যা পরবর্তী  প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির(নিকার) সভায় চুড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় ছিল। করোনা মহামারী  কারণে গত দেড় বছর ধরে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় নির্বাহী কমিটির (নিকার) কোন সভা অনুষ্ঠিত হতে পারেনি।

কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়াম্যান ও ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন পরিষদ মহাসচিব লেঃ কর্ণেল ফোরকান জানান,প্রস্তাবিত ঈদগাঁও  উপজেলা বাস্তবায়নের জন্য বাস্তবায়ন পরিষদ প্রধান সমন্বয়ক মাস্টার নুরুল আজিমের অবদান কখনো ভুলবার নয়। তাঁর অক্লান্ত পরিশ্রম ও নিয়মিত সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগ রক্ষার জন্য ঈদগাঁওবাসী চিরদিন তাঁর নিকট কৃতজ্ঞ থাকবে।

তিনি স্থানীয় সরকার সচিব হেলাল উদ্দীন আহমদের ভূমিকাকে অবিস্মরণীয় উল্লেখ করে  আরো বলেন, হেলাল উদ্দীন না থাকলে ঈদগাঁও বাসীর স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যেত। তাঁর কৃতিত্বের কারণেই ঈদগাঁও উপজেলা বাস্তবায়ন আর স্বপ্ন নয়, এটি এখন বাস্তবতা।

এছাড়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল,স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম,স্বরাষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, কক্সবাজার সদর-রামু আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, সাবেক সাংসদ ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, সংরক্ষিত নারী আসনের সাংসদ বেগম কানিজ ফাতেমা আহমদ, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, ডি আই জি চট্টগ্রাম রেঞ্জ, জেলা প্রশাসক কক্সবাজার, পুলিশ সুপার কক্সবাজার, সদর উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়াম্যানসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান।

 

2 responses to “ঈদগাঁও এখন স্বপ্নের স্বতন্ত্র উপজেলা”

  1. … [Trackback]

    […] Read More on that Topic: doinikdak.com/news/40330 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x