ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১২ পূর্বাহ্ন
তিস্তার পানি বাড়ায় ভাঙ্গনে বিপর্যস্ত দুই পাড়ের মানুষ
হীমেল মিত্র অপু স্টাফ রিপোর্টার

কুড়িগ্রামে বৃষ্টি ও উজানের ঢলে তিস্তার পানি বাড়ার সাথে সাথে ভাঙ্গনে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে দুই পাড়ের মানুষ। এ অবস্থায় সরকারি তেমন কোনো পদক্ষেপ না থাকায় হতাশ তারা। স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, তিস্তা নিয়ে সরকারের মহাপরিকল্পপনার কারণে আলাদা ভাবে কিছু করার নেই। তবে, ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে।

কুড়িগ্রাম জেলার মধ্য দিয়ে প্রায় ৪০ কিলোমিটার তিস্তা নদী প্রবাহিত হয়েছে। পানি বাড়ার সাথে সাথে ভয়াল মূর্তি ধারন করেছে এই নদী। গত এক সপ্তাহের ভাঙ্গনে তিস্তা অববাহিকার গড়াই পিয়ার, খেতাবখাঁ, গতিয়াসাম, বুড়িরহাট, কালিরহাট, ডাংরারহাট, কাশিমবাজারসহ অন্তত ১৫টি অংশে প্রায় দেড় শতাধিক ঘর-বাড়ি ও আবাদী জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। হুমকির মুখে পড়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদসহ সরকারি-বেসরকারি নানা স্থাপনা।

ভিটে-মাটি হারানো পরিবারগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ও খোলা আকাশের নিচে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। এই বর্ষা মৌসুমে আরো শত শত পরিবার ঘর-বাড়ি হারানোর আশংকা করছে।

ব্রহ্মপুত্র-ধরলার ভাঙ্গন রোধে প্রকল্প চলমান থাকলেও, তিস্তায় নেই। তবে, ভাঙ্গন কবলিত এলাকায় জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে বলে জানায়, পানি উন্নয়ন বোর্ড। ভাঙ্গন রোধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছে ভুক্তভোগীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x