ঢাকা, বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৫১ অপরাহ্ন
ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় সবুর রানা কারাগারে
মল্লিক জামান, রামপাল, বাগেরহাট

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক মহোদয়কে নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় রামপালের সবুর রানা নামে এক ব্যাক্তিকে কারাগারে প্রেরন করেছে খুলনার একটি আদালত। বৃহস্পতিবার ( ৩রা জুন) আদালত তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। সবুর রানা উপজেলার বড়দিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ মোল্যার পুত্র। এরপূর্বে ও লাকি বেগম নামে এক মহিলার দায়েরকৃত চাঁদা বাজির মামলায় সবুর রানাকে জেলে যেতে হয়েছিল। কেসিসি মেয়র মহোদয়কে নিয়ে রামপাল উপজেলা থেকে সবুর রানার মত রামপালের হুড়কা ইউনিয়নের গঙ্গাধর মজুমদারের পুত্র সুজন মজুমদার, রামপাল সদরের বারিক মল্লিকের পুত্র মোতাহার মল্লিক তাদের ফেসবুক আইডি থেকে অপপ্রচারে অংশ নেয় এবং উজলকুড় ইউনিয়নের মোহাম্মদ আলীর পুত্র আলআমিন শেখ সবুর রানার পোষ্ট শেয়ার করে। সবুরের বিরুদ্ধে মামলা হলে ও এদের বিরুদ্ধে এখন ও কোন প্রশাসনিক ব্যবস্থা না নেয়ায় রামপালের সাধারন মানুষের মধ্যে সর্বত্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।

দায়েরকৃত মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে যে, গত ১৮ এপ্রিল কেসিসি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক মহোদয়কে নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে সবুর রানার নামে খুলনা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করা হয়। ৩রা জুন বৃহস্পতিবার সবুর রানা খুলনা মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-১ এ হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। জামিন আবেদন শুনানী শেষে মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-১এর বিজ্ঞ বিচারক শহীদুল ইসলাম তার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

সবুর রানার বিরুদ্ধে রামপাল থানায় চাঁদাবাজি সহ একাধিক মামলা ছিল । সবুর রানা চাঁদাবাজি করতে গেলে মল্লিকেরবেড় ইউনিয়নের লাকি বেগম ২০০৯ সালে সবুরের নামে চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করে, মামলা নং-এসসি-১১/২০০৯। মামলায় ২৯/৭/২০১৫ ইংরেজী তারিখ হাজিরা দিতে গেলে বাগেরহাটের একটি বিজ্ঞ আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরন করে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে রামপাল থানায় ২৭/২/২০০৬ ও ৯/৬/২০০৮ দুটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করা হয়েছিল যার নং যথাক্রমে ১৮ ও ৪। ২০১৮ সালে সবুর রানার বিরুদ্ধে বিধান কুন্ড নামে এক ব্যাক্তি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে চাঁদাবাজির অভিযোগ দায়ের করে এবং ২১/৫/২০১৮ ইংরেজী তারিখে চাঁদাবাজির সংবাদ দৈনিক পূবা ল সহ কয়েকটি স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়।
উল্লেখ্য বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ কেসিসি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক মহোদয়কে নিয়ে সবুর রানা সহ সুজন মজুমদার, মোতাহার মল্লিক ও আলআমিন শেখ সহ যারা ফেসবুকে অপপ্রচার করেছে , তাদের সবার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবী রামপালের সাধারন মানুষের।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x