ঢাকা, রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩৩ অপরাহ্ন
আব্দুস সামাদ আজাদের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত
Reporter Name
সুনামগঞ্জে জাতীয় নেতা আলহাজ্ব আব্দুস'সামাদ আজাদের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে প্রার্থনা ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত

মুরাদ মিয়া,সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি: স্বাধীন বাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমস্ত্রী আলহাজ্ব আব্দুস সামাদ আজাদের ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সুনামগঞ্জ জগন্নাথ জিউড় মন্দির প্রাঙ্গণে এক বিশেষ প্রার্থনা ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় জগন্নাথ জিউড় মন্দির পরিচালনা কমিটির আয়োজনে মন্দির প্রাঙ্গণে এক বিশেষ প্রার্থনা ও স্মরণসভায় বিভিন্ন শ্রেণীপেশার লোকজন অংশগ্রহন করেন।

মন্দির পরিচালনা কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি শিক্ষাবিদ ধূর্জুটি কুমার বসুর সভাপতিত্বে ও কমিটির সাধারন সম্পাদক বিজয় তালুকদার বিজুর সঞ্চালনায় ও সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তনুজ কান্তি দে’র  সার্বিক সমন্বয়ে এ স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক অধ্যক্ষ বিশিষ্ঠ শিক্ষাবিদ পরিমল কান্তি দে,শিক্ষাবিদ যোগেশ্বর চন্দ্র দাস,তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,বিশিষ্ঠ আওয়ামীলীগ নেতা সুবীর তালুকদার বাপ্টু,সংস্কৃত কলেজের অধ্যক্ষ গৌরাঙ্গ চক্রবর্তী,হিন্দু কমিউনিটি নেতা বকুল তালুকদার,দূর্গাবাড়ি পরিচালনা কমিটির সভাপতি বিকাশ রঞ্জন চৌধুরী বানু,এড. স্বপন কুমার দাস রায়,জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জুনেদ আহমদ,শংকর চন্দ্র দাস,শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সীতেশ তালুকদার মঞ্জু, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,সুনামগঞ্জ জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য সবুজ কান্তি দাস, যুবলীগ নেতা বকুল তালুকদার, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি এড. বিমান কান্তি রায়,সুবিমল চক্রবর্তী চন্দন,মতিউর রহমান কলেজের অধ্যক্ষ অনিমেশ তালুকদার বাপ্পু, কিরণময় রায়,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দিপংঙ্কর কান্তি দে ও জেলা ছাত্রলীগ নেতা অমিয় মৈত্র প্রমুখ।

এছাড়াও এই স্মরণসভায় উপস্থিত সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞা জানিয়ে বার্তা পাঠান যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ নেতা সুনামগঞ্জ সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি আজহারুল ইসলাম শিপার।

নেতৃবৃন্দ বলেছেন,মরহুম আব্দুস সামাদ আজাদ ছিলেন সুনামগঞ্জবাসীর গর্ব, রাজনীতির বরপূত্র  এবং সম্প্রীতির প্রতিক। সেই সাথে বৈশ্বিক মহামারী করোনার ছোবল থেকে মানবজাতি যাতে মুক্তি পায় সেই কথাও নেতৃবৃন্দের মুখ থেকে উচ্চারিত হয়।  প্রার্থনা পরিচালনা করেন পুরোহিত ও গীতা পাঠক শ্রী নির্মল চক্রবর্তী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x