ঢাকা, বুধবার ২৯ জুন ২০২২, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন
আজ আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস, দেশে নিরক্ষর ২৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

আজ (৮ সেপ্টেম্বর) আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস। অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দিনটি যথাযথভাবে পালন করা হবে। এবারে দিনটির প্রতিপাদ্য ‘লিটারেসি ফর হিউম্যান-সেন্টার্ড রিকভারি: ন্যারোয়িং দ্য ডিজিটাল ডিভাইড’।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর ২০২০ সালের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশের বর্তমান সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ। বর্তমান সরকারের নানামুখী কর্মসূচির কারণে আগের তুলনায় সাক্ষরতার হার উত্তরোত্তর বাড়লেও এখনও প্রায় ২৪ দশমিক ৪ শতাংশ জনগোষ্ঠী নিরক্ষর।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় দিনটি উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে। দিনটি উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠান, ক্রোড়পত্র প্রকাশ, গোলটেবিল বৈঠক, বাংলাদেশ টেলিভিশনে টক-শো করা হবে। এছাড়া দেশের প্রত্যেক জেলা প্রশাসক স্বাস্থ্যবিধি মেনে আলোচনা সভা করবেন। ঢাকা প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন প্রধান অতিথি থাকবেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মন্ত্রণালয়ের সচিব গোলাম মো. হাসিবুল আলম।

দিনটি উপলক্ষে গত সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা অধিদপ্তর ও বর্তমানের উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো প্রায় ১ কোটি ৮০ লাখ নিরক্ষরকে সাক্ষরতা প্রদান করেছে। শিক্ষার সুযোগ বঞ্চিত জনগোষ্ঠিকে স্বাক্ষর জ্ঞানদান, জীবনব্যাপী শিক্ষার সুযোগ সৃষ্টি, কারিগরি ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জীবিকায়ন, দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করা, আত্ম-কর্মসংস্থানের যোগ্যতাসৃষ্টিকরণ এবং বিদ্যালয় বহির্ভূত ও ঝরে পড়া শিশুদের শিক্ষার বিকল্প সুযোগ সৃষ্টির জন্য সরকার উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা আইন করেছে।

উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু দেশ থেকে নিরক্ষরতা দূর করতে শিক্ষাকে অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলক হিসেবে ঘোষণা করেন। সাক্ষরতা বিস্তারে আন্তর্জাতিক ফোরামের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে ১৯৭২ সালে স্বাধীন দেশে প্রথমবারের মতো সাক্ষরতা দিবস উদযাপন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x