ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন
রৌমারীতে এরশাদ হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন
রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলায় এরশাদের হত্যাকারিদর দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির  দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসি।

শুক্রবার ( ২৩ জুলাই) সকাল ১১ টার দিকে কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজলার যাদুরচর ইউনিয়নের খেওয়ারচর বাজার এলাকায় এ মানববন্ধন পালন করা হয়েছে।

এসময় বক্তব্য রাখেন নিহতের  বাবা সুরুজ্জামাল, সাবক ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম, ৯ নং ওয়ার্ডের যুবলীগ সভাপতি আকতার হোসেন, ফরিজল হক, ফরমান আলী ও নিহতের স্ত্রী লাভলি আকতার প্রমূখ। বক্তারা অবিলম্ব এরশাদের খুনি একই ইউনিয়নর খেওয়ারচর গ্রামের মিটন মিয়ার ছেলে শিহাবসহ অন্যান্যদর দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান।

ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি আকতার হোসেন  বলেন, গত ২০ জুন রাত ৮ টার দিক এরশাদ আলী ও মাসুদ রানা  কাজের উদ্দশ্য ঢাকায় যাছিলেন। বাড়ি থেকে প্রায় দেড় কিলামিটার দুরে নির্জন স্থানে  গেলে  আগে থেকেই ওত  পেতে থাকা  শিহাব (১৮) ও রাসেল (২৮) তার ওপর অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। মারপিটের একপর্যায়ে ধারালো চাকু দিয়ে এরশাদের গলা এফার ওফার করে দেয়। ঘটনাস্থলেই মারা যান এরশাদ। গুরুতর আহত হন মাসুদ রানা। তাদের চিৎকারে  আশপাশের লাকজন ছুটে আসলে  ঘাতকরা পালিয় যায়। পরে তাদের রৌমারী হাসপাতাল ভর্তি করালে এরশাদকে মৃত ঘাষণা করেন চিকিৎসক। আহত মাসুদ রানাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছিল।

সাবেক ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম জানান, মামলার এজাহারে বাদী হিসাবে নিহতের বাবা সুরুজ্জামালর নাম উল্লখ থাকলও টিপসহি দিয়েছেন যাদুরচর ইউপি সদস্য হায়দার আলী এবং অন্য একটি ফোন নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে এই মামলাটি ভিন্নখাতে নেওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নিহতের বাবা সুরুজ্জামাল বলন, আজ প্রায় ১ মাস অতিবাহিত হলেও পুলিশ কোন আসামীকে আটক করতে  করেনি। তাই আমার ছেলে এরশাদের খুনিদের গ্রেফতার করে ন্যায় বিচারের জোর  দাবী করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x