ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪, ০৪:১৭ অপরাহ্ন
বাংলাদেশ-ভারত ফ্লাইট চালু নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়ল
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পর্যবেক্ষণের কারণে ‘এয়ার বাবল’ চুক্তির অধীনে শিগগিরই চালু হচ্ছে না ভারত-বাংলাদেশ ফ্লাইট। পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন রবিবার (২২ আগস্ট) সন্ধ্যায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান। ফলে চিকিৎসাসহ নানা কারণে উভয় দেশে চলাচলকারী যাত্রীদের অনিশ্চয়তা আরো বাড়ল।

বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচলক কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান মো. মফিদুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে ভারত এরই মধ্যে আগ্রহ প্রকাশ করে আমাদের চিঠি দিয়েছে। আমরাও আগ্রহ প্রকাশ করে মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট পরিচালনাসহ কিছু শর্তের কথা জানিয়েছি। তারা এখনো সে বিষয়ে কিছু জানায়নি।’

তিনি বলেন, ‘আশা করছি, দুই দেশ শর্ত সাপেক্ষে ফ্লাইট পরিচালনাসহ সার্বিক বিষয়ে একমত হলে দ্রুত বাংলাদেশ থেকে ভারতে ফ্লাইট পরিচালনা করা যাবে। তবে এয়ারলাইনসগুলোকে বলা হয়েছে, তারা যেন ভারতে ফ্লাইট পরিচালনার প্রস্তুতি নিয়ে রাখে।’

এয়ার বাবলের আওতায় ২০ আগস্ট থেকে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে—এমনটিই জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। পরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ২২ আগস্ট থেকে ফ্লাইট চালানোর ঘোষণাও দিয়েছিল। পরে তা স্থগিত করা হয়। আগামী ২৬ আগস্ট স্পাইসজেট এবং ২৭ আগস্ট থেকে ইন্ডিগোর ফ্লাইট চালুর কথা ছিল। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে এ বছরের এপ্রিলে বাংলাদেশ ভারতের সঙ্গে ফ্লাইট চলাচল স্থগিত করে।

তবে পরিস্থিতির উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে দুই দেশের মধ্যে ফ্লাইট চালুর বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়। গত ৪ আগস্ট ভারতের বেসামরিক বিমান চলাচল অধিদপ্তরকে (ডিজিজিএ) এয়ার বাবল চুক্তির আওতায় ১১ আগস্ট থেকে ফ্লাইট ফের শুরুর অনুমোদন চেয়ে একটি চিঠি দেয় বেবিচক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x