ঢাকা, রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন
ভিখারিনীকে পুনর্বাসনের জন্য নগদ অর্থ প্রদান করলেন মেয়র মির্জা
শাহাদাত হাসেন কােম্পানীগঞ্জ (নােয়াখালী)

নােয়াখালী কােম্পানীগঞ্জ বসুরহাট পৌরসভার মেয়র বলেন, যাঁর বাড়ী নেই, ঘর নেই পথে-ঘাটে, হাটে-বাজারে দিন রাত কেটে যায় যার নিতান্তই অসহায় ভিখারিনী ছেমনা বেগমের পূনর্বাসনের জন্য নগদ অর্থ প্রদান করলেন বসুরহাট পৌরসভার মানবিক মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

আজ (১ জুলাই) দুপুর ২টায় বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে অবৈধ স্থাপনা সনাক্ত করনের অভিযানে নামেন। অভিযান শেষে বসুরহাট মুজিব চত্বরে এলে রাস্তার পার্শ্বে দাঁড়িয়ে থাকা ভিক্ষুক ছেমনা খাতুন হাত মেলে ভিক্ষা চাইলেন কাদের মির্জার কাছে। কাদের মির্জা দুই পায়ে এগিয়ে গেলে ভিক্ষুক ছেমনা খাতুন তার অসহায়ত্বের চিত্র তুলে ধরে আকুতি করে বলেন, আমি স্বামী হারা, সন্তান হারা, অসহায়, গরিব, নিরীহ, শারিরীক অসুস্থ্য মানুষ। বিগত ৬০ বছর যাবত কোম্পানীগঞ্জের বিভিন্ন বাজারে অলিতে-গলিতে থাকি। আমাকে ৩ বান টিন দিলে সিরাজপুরের ৫নং ওয়ার্ডে আমার পিতার বাড়ীতে ৩ শতাংশ জায়গার উপর ঘর করে থাকব।

ওই ভ‚মিতে ঘর তুলে দেওয়ার জন্য মানবিক মেয়র আবদুল কাদের মির্জা তার খোঁজ-খবর নিয়ে দেখলেন ছেমনা খাতুন নিতান্তই অসহায়। তাৎক্ষনিক বৃদ্ধার হাতে নগদ ৫০ হাজার টাকা তুলে দিলেন ঘর নির্মাণের জন্য এবং তার ঘর নির্মাণের দেখবাল করার জন্য দায়িত্ব দিয়েছেন মাষ্টার আব্দুল কাইয়ুমকে। এদিকে আরো সাহায্যের আশ্বাস প্রদান করলেন এই মানবিক মেয়র।

ছেমনা খাতুন নগদ অর্থ হাতে পেয়ে খুশিতে আতœহারা হয়ে পড়ে অনুভুতি প্রকাশ করে বলেন, আমি খুশি! হেতেন আমার বাবা (কাদের মির্জা)। আমি ৬০ বছর বাজারের চিপা অলি-গলিতে থাকি। আমি আজ খুশি!

মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, আজ আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আছে বলেই মানুষের অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিৎসা সহ বিভিন্ন মৌলিক চাহিদা গুলো সংস্থানের সুযোগ হয়েছে। এলাকায় বিত্তবানরা গরিব, দুঃখি, অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের পাশে এগিয়ে আসলে মানুষের এমন কষ্ট আর থাকবেনা।

ভিক্ষুক ছেমনা খাতুনের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করায় উপস্থিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জা সকলের প্রশংসা কুড়িয়ে নেন।

One response to “ভিখারিনীকে পুনর্বাসনের জন্য নগদ অর্থ প্রদান করলেন মেয়র মির্জা”

  1. … [Trackback]

    […] Find More to that Topic: doinikdak.com/news/31305 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x