ঢাকা, বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৪২ অপরাহ্ন
ইউপি চেয়ারম্যান এক কোটি ৬৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বরখাস্ত
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

ইউপি চেয়ারম্যান এক কোটি ৬৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বরখাস্ত

রংপুরের বদরগঞ্জের আলোচিত সেই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পাঠানো চিঠিতে তাকে বরখাস্ত করার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এক কোটি ৬৩ লাখ টাকা আত্মসাতের মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেলে থাকায় মধুপুর ইউপি চেয়ারম্যান আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

বুধবার (২৫ আগস্ট) সকালে বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রেহেনুমা তারান্নুম ইউপি চেয়ারম্যান আয়নাল হককে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি শুনেছেন বলে জানান। এর আগে সোমবার (২৩ আগস্ট) স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মো. আবুজাফর রিপন স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশ দেওয়া হয়। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আয়নাল হক বিশ্বাস ভঙ্গ, প্রতারণামূলক ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এক কোটি ৬৩ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বদরগঞ্জ থানায় দায়েরকৃত মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে জেলহাজতে থাকায় ইউনিয়ন পরিষদে ক্ষমতা প্রয়োগ প্রশাসনিক দৃষ্টিকোণে সমীচীন নয়। এ অবস্থায় জনস্বার্থে পরিপন্থি বিবেচনায় স্থানীয় সরকার আইন অনুযায়ী তাকে ইউপি চেয়ারম্যানের পদ থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এর আগে রংপুরের জেলা প্রশাসক ওই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন বলে প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়।

উল্লেখ্য, আয়নাল হক সমাজ সেবায় নানাভাবে অবদান রাখলেও উপজেলায় তিনি ছিলেন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।

তাকে নিয়ে বিভিন্ন সময় নানা অঘটন ঘটে। ব্যক্তিগত ও ব্যবসা সংক্রান্ত কয়েকটি মামলায় তিনি জেলহাজতে ছিলেন। অবশেষে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রেহেনুমা তারান্নুম বলেন, বিষয়টি বিভিন্ন মাধ্যমে শুনেছি। তার বরখাস্তের চিঠি পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x