ঢাকা, মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২, ০৮:৫২ অপরাহ্ন
গোলাপগঞ্জের সড়কে ঝরলো দাদা-নাতীর প্রান : স্ত্রী-মেয়ে-পুত্রবধু হাসপাতালে
অনলাইন ডেস্ক

সিলেটের গোলাপগঞ্জে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় দাদা-নাতী নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এছাড়া একই পরিবারের তিন নারী গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের রাণাপিং নামক স্থানে সিলেট-জকিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। জানা যায় সিলেটগামী টয়োটা প্রো-বক্স প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-গ ১৪-৯৫৯৫) ও সিলেট থেকে কানাইঘাটগামী মালবাহী পিকআপভ্যানটি (ঢাকা মেট্রো-ন-২০-৮২৪৭) রাণাপিং মিনা কমিউনিটি সেন্টারের অদূরে আসামাত্র মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এসময় প্রাইভেটকারে থাকা ২জন যাত্রী নিহত হয়েছেন। নিহতরা সম্পর্কে দাদা ও নাতি। এ ঘটনায় প্রাইভেটকারের চালক ও ৩নারী আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- বিয়ানীবাজার উপজেলার জলঢুপ পাতন উশপাড়া গ্রামের শফিক উদ্দিন (৭০) ও তার নাতি আরিয়ান (১)।

আরিয়ানের বাবা নাম আবুল হাসনাত (প্রবাসী)। আহতদের মধ্যে শফিক উদ্দিনের স্ত্রী জোসনা বেগম (৫৫), মেয়ে ফাতিমা আক্তার (২৩) পুত্রবধু তামান্না রহমান (২৫), ও প্রাইভেটকার চালক নাসির উদ্দিন (২৯)।

পুলিশ ও নিহতদের পরিবারের সদস্যদেও সাথে কথা বলে জানা যায়, বিয়ানীবাজারের নিজ বাড়ি থেকে প্রাইভেটকারযোগে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে সিলেট শহরে চিকিৎসার উদ্যেশ্যে যাচ্ছিলেন শফিক উদ্দিন। পথিমধ্যে সিলেট-জকিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের রাণাপিং নামক স্থানে একটি মালবাহী পিকআপভ্যানের সাথে প্রাইভেটকারটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা সবাইকে উদ্ধার করে গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক শফিক উদ্দিন ও আরিয়ানকে মৃত ঘোষণা করেন। এছাড়া আহত চারজনকে তাৎক্ষনিক সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে গুরুতর অবস্থায় আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানান নিগত শফিক উদ্দিনের ছেলে তুষার আহমদ। এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গোলাপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোলাম কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x