ঢাকা, সোমবার ২৭ মে ২০২৪, ১১:৪২ পূর্বাহ্ন
শ্যালিকার সঙ্গে পরকীয়া, প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে হত্যা
শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরে শ্যালিকার সাথে পরকীয়া প্রেমে বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে মো. মফিজ উদ্দিন (৩০) নামে এক পাষণ্ড স্বামী। ২২ জুন মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার চরমোচারিয়া ইউনিয়নের মুন্সীরচর মরাকান্দি গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। এদিকে ওই ঘটনায় পাষণ্ড স্বামী মফিজ উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। মফিজ স্থানীয় মো. সোহরাব আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েক বছর আগে মফিজ উদ্দিনের সাথে জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার চরগোয়ালিনী ইউনিয়নের ডিগ্রীরচর গ্রামের মো. সিরাজুল ইসলামের মেয়ে নাছিমা বেগমের (২৬) পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তারা ২ সন্তানের বাবা-মা।

এদিকে কিছুদিন ধরে মফিজ উদ্দিন তার শ্যালিকার সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন। ওই ঘটনা জানার পর স্ত্রী নাছিমা বেগম মফিজ উদ্দিনকে পরকীয়া থেকে সরে আসতে অনুরোধ করেন। এ নিয়ে নাছিমার সঙ্গে মফিজ উদ্দিনের পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে সোমবার নাছিমা বেগমকে মারধর করে মফিজ। এতেও ক্ষান্ত থাকেনি মফিজ উদ্দিন। পরদিন মঙ্গলবার সকালে নাছিমা বেগমের সঙ্গে মফিজ উদ্দিনের আবারও বাগবিতণ্ডা ও কলহের জের ধরে নাছিমা বেগমকে বেধরক মারপিটের এক পর্যায়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। খবর পেয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুর আহাম্মদ জানান, খবর পেয়ে নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে সূরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই ঘটনায় নিহতের স্বামী মফিজ উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। নিহত নাছিমা বেগমের গলায় ও কানে সামান্য আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ওই ঘটনায় সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

2 responses to “শ্যালিকার সঙ্গে পরকীয়া, প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে হত্যা”

  1. altscene says:

    Aw, this was an extremely good post. Taking a few minutes and actual
    effort to produce a good article… but what can I say… I
    put things off a whole lot and never seem to get nearly anything done.

  2. I loved as much as you will receive carried out right
    here. The sketch is tasteful, your authored subject matter stylish.
    nonetheless, you command get bought an edginess over that you wish be delivering the following.

    unwell unquestionably come further formerly
    again as exactly the same nearly very often inside case you shield this hike.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x