ঢাকা, শনিবার ২২ জুন ২০২৪, ০৮:৪৭ পূর্বাহ্ন
মোংলায় মুক্তিযোদ্ধার জায়গা জবর দখল
Reporter Name

জাহিদ রানা ,মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি: মোংলায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের জায়গা দখল করে রাখার অভিযোগ উঠেছে কয়েকজন ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে। তার মালিকানা ভূমির সীমানা নিধার্রণ করতে গেলে তাকে বাঁধা ও হুমকি ধামকি দিচ্ছে ওই ভূমিদস্যুরা। ওই চক্রের কবল থেকে রক্ষা পেতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্ ও পৌর মেয়রের বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মোংলা পোর্ট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক শেখ সুলতান আহম্মেদ।

বিভিন্ন দপ্তরে দেয়া অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানা যায়, মোংলা পোর্ট পৌরসভার শেহলাবুনিয়া মৌজায় চারটি দলিলে ৪৪.২৫ শতক ভূমি খরিদ সূত্রে মালিক মুক্তিযোদ্ধা শেখ সুলতান আহম্মদ। যাহা এসএ ও ডিপি খতিয়ানের তার নামে মাঠ জরিপ করা হয়। এবং তিনি নিজ নামে নামপত্তন করেন। কিন্তু তার ওই মালিকানা সম্পত্তি স্থানীয় ভূমিদস্যু হারুনুর রশিদ, আবুল বাশার, মোঃ মিরাজ কিছু অংশ জবর দখল করে রেখেছেন। অন্যদিকে জোরপূর্বক তার মালিকানা পুকুরে মাছ চাষ করে আসছেন, ওইসব দস্যুদের হোতা মোঃ মোশারফ হোসেন, জহির উদ্দিন ও গোলাম মোস্তফা। পুকুরে মাছ চাষের বিনিময়ে তাকে (সুলতান) কোন টাকা পয়সা দিতেন না জবর দখল মাছ চাষকারীরা। শিক্ষকতা থেকে অবসরে এসে নিজের ভূমিটুকু সীমানা দিয়ে দখল নিতে গেলে সেখানেও বঁাধা দেন জবর দখলদার আর ভূমিদস্যুরা। ভূমিদস্যুদের এমন হয়রানি থেকে বঁাচতে স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন মুক্তিযোদ্ধা শেখ সুলতান আহম্মেদ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, তিনি একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি দ্রুত যথাযথ ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান তিনি। থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, মুক্তিযোদ্ধা শেখ সুলতান আহম্মদের একটি লিখিত অভিযোগ তিনি পেয়েছেন। অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে একজন পুলিশ অফিসারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্ত শেষে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক প্রধান শিক্ষককে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদাণ করা হবে বলেও জানান তিনি। পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সুলতান আহম্মদের একটি লিখিত অভিযোগ তিনি পেয়েছেন। বিষয়টি দ্রুত সমাধানের জন্য পৌরসভার আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট আঃ সালাম ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল হামিদ নাসিরকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

3 responses to “মোংলায় মুক্তিযোদ্ধার জায়গা জবর দখল”

  1. … [Trackback]

    […] Information on that Topic: doinikdak.com/news/12804 […]

  2. … [Trackback]

    […] There you will find 3557 additional Information to that Topic: doinikdak.com/news/12804 […]

  3. … [Trackback]

    […] Find More Information here on that Topic: doinikdak.com/news/12804 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x