ঢাকা, বৃহস্পতিবার ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:০৭ অপরাহ্ন
চরসেনসাসে গভীর রাতে আগুন পুরলো ১৭ টি দোকান- উপমন্ত্রীর সহায়তা
মোঃ রুহুল আমিন, শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার বালার বাজারে আগুন লেগে সতেরোটি দোকান পুড়ে গেছে। ব্যবসায়ীদের দাবি, আগুনে প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সোমবার (২৬ জুলাই) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুড়ে যাওয়া দোকানগুলো হলো দুদু মিয়া ব্যাপারীর ফল, জহিরুল ইসলামের ফল, নান্নু পাঠওয়ারীর ফল, মুন্সী মোল্লার মুদি, আলমাস মুন্সীর মুদি, নোয়াব হাংলাদারের মুদি, খাজা মোল্লা কসমেটিকস, নুরে আলম বালা কাপড়, আমানুল্লাহ ওষুধ, গোপাল স্বর্ণ, সুরেশ দর্জি, আদু মোল্লা ইলেক্ট্রনিকস, সিরাজ ওষধ, লতিফ মুদি, সোহেল বালা মদি, বাচ্চু মামুদ মুদি, খোকন গাজী মুদি দোকান।

শরীয়তপুরের ফায়ার সার্ভিসের স্টেশনের উপসহকারী পরিচালক মো. সেলিম মিয়া জানান, খবর পেয়ে রাত ৪টা ১০ মিনিটে ফায়ার সার্ভিস সদর ও ডামুড্যা উপজেলার ৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালায়। প্রায় দেড় ঘণ্টার চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক ত্রুটি থেকে এ আগুন লেগেছে।

বালার বাজার কমিটির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বালা বলেন, বাজারের ১৭টি দোকান আগুনে পুড়ে গে‌ছে। গভীর রাতে আগুন লাগার কারণে কোন মালামাল বের করা সম্ভব হয়নি। ব্যবসায়ীরা সর্বশান্ত হয়ে গে‌ছে। আমরা সরকারের কাছে সহায়তা চাই।

চরসেনসাস ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জিতু মিয়া ব্যাপারী জানান, রাত সাড়ে ৩টার দিকে বাজারের সতেরোটি দোকানে আগুন লেগেছে—এমন খবর জানিয়ে ভোরে স্থানীয় এক ব্যবসায়ী তাঁকে মুঠোফোনে খবর দেন। তিনি  ঘটনাস্থলে যান এবং পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ও শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য একেএম এনামুল হক শামীমের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেছেন। পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

তিনি জানান, আগুন লাগার ঘটনায় এসব দোকানের অন্তত এক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ব্যবসায়ীরা দাবি করেছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সহযোগীতা করবেন বলে জানিয়েছেন চেয়ারম্যান।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর আল নাসীফ বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে  ক্ষতিগ্রস্ত প্রতি ব্যবসায়ীকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা করে দেয়া হয় এবং  চেয়ারম্যান জিতু মিয়া বেপারীর  নিজেস্ব তহবিল থেকে তিন হাজার টাকা করে দেয় হয় মোট আট হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। এবং  ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে।

5 responses to “চরসেনসাসে গভীর রাতে আগুন পুরলো ১৭ টি দোকান- উপমন্ত্রীর সহায়তা”

  1. moto nova78 says:

    … [Trackback]

    […] Read More on to that Topic: doinikdak.com/news/40642 […]

  2. … [Trackback]

    […] There you can find 17896 additional Information on that Topic: doinikdak.com/news/40642 […]

  3. FUL says:

    … [Trackback]

    […] Find More here on that Topic: doinikdak.com/news/40642 […]

  4. … [Trackback]

    […] Find More on on that Topic: doinikdak.com/news/40642 […]

  5. sbobet says:

    … [Trackback]

    […] Read More to that Topic: doinikdak.com/news/40642 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x