ঢাকা, সোমবার ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫৩ অপরাহ্ন
মোবাইল-মানিব্যাগ চুরির অভিযোগ মামুনুল ও তার ভাইয়ের বিরুদ্ধে
Reporter Name

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার তাকে আদালতে তুলে দিনের রিমান্ড চান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) সাজেদুল হক। রিমান্ড আবেদনে হেফাজত নেতা মামুনুল হক তার ভাই মাহফুজুল হকসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে মোবাইল মানিব্যাগ থেকে টাকা চুরির অভিযোগ আনা হয়। 

রিমান্ড আবেদনে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, গত বছরের মার্চ মোহাম্মদপুর সাত মসজিদ এলাকায় সাত গম্বুজ মসজিদে রাত সাড়ে ৮টায় আসামি মাওলানা মামুনুল হক তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসার ছাত্র আসামি ওমর এবং ওসমান বাদী তার সঙ্গে থাকা অন্যদের মসজিদে আমল (ধর্মীয় কাজ) করতে নিষেধ করেন। তাদের মসজিদ থেকে বের হয়ে যেতে বলেন আসামিরা। হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হককে

এতে বলা হয়, বাদী প্রতিবাদ করলে মামুনুল হক তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে মাদরাসার আরও ৭০৮০ জন ছাত্র বের হয়ে বাদীকে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর জখম করেন। আসামি ওমর ওসমান তাদের হাতের লাঠি দিয়ে বাদীকে এলোপাতাড়ি আঘাত করেন। লাঠির আঘাতে গুরুতর জখম হয়ে মসজিদের ভেতরে শুয়ে পড়েন বাদী।

‌’এরপর আসামিরা বাদীর কাছে থাকা একটি স্যামসাং মোবাইল, নগদ সাত হাজার টাকা, ২০০ ডলার ব্র্যাক ব্যাংকের একটি ডেবিট কার্ডসহ বাদীর মানিব্যাগ নিয়ে যান। বাদীকে পুনরায় মসজিদে প্রবেশ করলে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেন আসামিরা।

পরে শুনানি শেষে বেলা ১১টা ৩৩ মিনিটের দিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদেশ দেন।

মারধর, হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাতে গুরুতর জখম, চুরি, হুমকি ধর্মীয় কাজে ইচ্ছাকৃতভাবে গোলযোগের অভিযোগ এনে স্থানীয় এক ব্যক্তি মোহাম্মদপুর থানায় মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x