ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
চারঘাটে জমি নিয়ে সংঘর্ষ ভাতিজার হাসুয়ার কোপে চাচার মৃত্যু
নাজিম হাসান,রাজশাহী

রাজশাহীর চারঘাটে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনায় ভাতিজার হাসুয়ার কোপে প্রান হারালেন চাচা মতিউর রহমান মতি (৬০)। গতকাল শুক্রবার (১৩আগস্ট) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার নিমপাড়া ইউনিয়নের ভাটপাড়া ছাউবোনা এলাকায় সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৭ জন আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে পাশের পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদের মধ্যে নিহত মতিউ রহমানের ছেলে ইনছান আলীর অবস্থা আশঙ্কা জনক।  স্থানীয় গ্রামবাসী সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকালে নিহত মতিউর রহমান ও তার ছেলে ইনছান নিজ জমিতে ধান লাগাতে গেলে প্রতিপক্ষ বড় ভাই ও তার ৫ ছেলে তাকে কাজ করতে বাধা দেয়। এমতাবস্থায় উভয়ই তর্কবিতর্কে লিপ্ত হন। এক পযায়ে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয় এবং বড় ভাই খলিলুর রহমানের ছেলে ওয়াকিল এর হাসুয়ার আঘাতে মতিউরের পেট ফেড়ে গেলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এসময় তাদের চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় মতিউর ও তার ছেলে ইনছান (২০), প্রতিপক্ষ খলিলুর রহমান (৭০), ছেলে ওয়াকিল (৪০), তোতা মিয়া (৪৩) সহ উভয় পক্ষের প্রায় ৭ জন আহতদেরকে পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। উভয়পক্ষের আহত ব্যক্তিরা আশংকাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত ডাক্তার তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রামেক হাসপাতালে প্রেরণ করেন। নিহত মতিউরের স্ত্রী মোর্শিদা বেগমসহ আত্মীয় স্বজনদের সাথে কথা বললে তারা জানায়, পৈত্রিক বসতভিটা ও কৃষি জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ খলিলুর রহমান ও তার ছেলে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের নিয়ে শুক্রবার সকালে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার স্বামী ও ছেলের উপর হামলা করে। স্বামীর হত্যার সুষ্ঠ বিচার চান বলে নিহতের স্ত্রী দাবি করেন।

এলাকাবাসী জানান, নিহত মতিউর রহমান একজন অবসরপ্রাপ্ত বাংলাদেশ রেলওয়ের ডাক্তার এবং খুবই নিরহ ব্যক্তি। চাকুরীরত অবস্থায় বেশির ভাগ সময়ই তিনি এলাকার বাইরে অবস্থান করতেন। পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত জমি তার বড় ভাই প্রতিপক্ষ খলিলুর রহমান ভোগ দখল করে আসছিল। কয়েকবার স্থানীয় সালিশে এ বিষয়ে মিমাংসার চেষ্টা করা হলেও প্রতিপক্ষ খলিলুর রহমান ও তার ছেলে তা অমান্য করেন। জমি সংক্রান্ত একটি মামলা কোর্টে চলমান রয়েছে। সুষ্ঠ বিচারের জন্য দীর্ঘদিন তিনি থানা ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদে গেলেও ন্যায় বিচার পাইনি বলে জানান নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যাক্তি। মুঠোফনে খলিলুর রহমানে ছেলে তোতা মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে মোবাইল বন্ধ থাকায় তাকে পাওয়া যায়নি। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে থানা (ওসি) মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ দ্রæত ঘটনাস্থলে যান। জমি সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে দীঘদিন দুই ভায়ের মধ্যে বিবাদ চলে আসছিল। তারই জের ধরে ছোট ভাই মতিউর রহমান নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ তরা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে ঘাতকদের বাড়ীতে তালা ঝুলিয়ে তাদের পরিবারেরর লোকজন পালিয়ে গেছে।#

One response to “চারঘাটে জমি নিয়ে সংঘর্ষ ভাতিজার হাসুয়ার কোপে চাচার মৃত্যু”

  1. … [Trackback]

    […] Find More Information here to that Topic: doinikdak.com/news/47012 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x