ঢাকা, রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৩ অপরাহ্ন
পদ্মা সেতুতে আঘাত লাগলে হৃদয়ে আঘাত লাগে: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী
অনলাইন ডেস্ক

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী শিমুলিয়া ঘাট পরিদর্শন শেষে বলেছেন, পদ্মা সেতুতে ফেরি বার বার ধাক্কা দিচ্ছে। এ জায়গাটিতে আমরা বিব্রত বোধ করছি। এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আমাদের কিছু নির্দেশনা ছিল। এই নির্দেশনা পালনের ক্ষেত্রে আমরা কিছু উদাসীনতা লক্ষ্য করেছি। এগুলো কেন হচ্ছে, এ বিষয়ে শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় আমরা উচ্চ পর্যায়ে দায়িত্বশীলদের নিয়ে সভা করব। সেই সভাতেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানা যাবে।

পদ্মা সেতুতে আঘাত লাগলে হৃদয়ে আঘাত লাগে: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর খুঁটিতে আঘাত করে একটি ফেরি। ওই খুঁটি ও পদ্মা সেতু পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন ‘মাঝিকান্দি আমরা পরিদর্শন করেছি। কারণ পদ্মা সেতু পুরোপুরি চালু হওয়ার পর বাংলাবাজার ঘাটটি আর ব্যবহার করা যাবে না। সেতুর সার্বিক নিরাপত্তার কারণে। সে ক্ষেত্রে মাঝিকান্দি আমরা ফেরিঘাট হিসেবে ব্যবহার করতে চাই। আজকে সেটার প্রাথমিক পরিদর্শন করেছি। এ বিষয়ে আজকের সন্ধ্যার সভায় বিস্তারিত আলোচনা হবে। সেখান থেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, এই রুটটিতে এখন যে গতিশীলতা এসেছে তা বর্তমান সরকারের ১২ বছরের কার্যক্রমের ফলাফল। এখন এই রুটটি দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এই নৌরুটটি এক সময় গুরুত্বপূর্ণ ছিল না। কারণ এই রুটে যাতায়াতে আড়াই থেকে ৩ ঘণ্টা লাগতো। বিআইডব্লিউটিএ এবং বিআইডব্লিউটিসির সক্ষমতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বৃদ্ধি হওয়ার কারণেই এ নৌরুটটি এখন অনেক জনপ্রিয় হয়ে গেছে। এক্সপ্রেসওয়ে রোডগুলো আমরা বিশ্বমানের করে ফেলেছি ইতোমধ্যে। আগে যে রুটটি চলাচলের জন্য খুব বেশি যে ব্যবহার হতো তা না।

তিনি বলেন, এখন যেহেতু এই রুটটি জনপ্রিয়তা পেয়েছে, তার চেয়েও বড় কথা আমাদের পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা। আমরা বাংলাদেশের মানুষ অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পদ্মা সেতু আজকে বাস্তবতার রূপ নিয়েছে এবং উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে। আমরা আশা করছি আগামী বছর পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে। কাজেই পদ্মা সেতুর কোনো জায়গায় আঘাত আসলে বাংলাদেশের মানুষের হৃদয়ে আঘাত লাগে। যদিও এই ধরনের আঘাতে পদ্মা সেতুর ন্যূনতম কোনো ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা নাই, তারপরও এটা আমাদের হৃদয়ে আঘাত করে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, ফেরিগুলোর গায়ে রাবার বসানোর অর্ডার দেওয়া হয়েছে।

এ সময় বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক, মুন্সীগঞ্জের ডিসি কাজী গোলাম রসুলসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x