ঢাকা, বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৪ অপরাহ্ন
পুলিশকে পিটিয়ে নদীতে নিক্ষেপ, কাউন্সিলরসহ ৫ জনের রিমান্ড আবেদন
দৈনিকডাক অনলাইন ডেস্ক

সুনামগঞ্জের ছাতকে নৌপুলিশের ওপর হামলা ও পিটিয়ে নদীতে নিক্ষেপের ঘটনার মূল হোতা মামলার প্রধান আসামি আওয়ামী লীগ নেতা পৌর কাউন্সিলর তাপস চৌধুরীসহ পাঁচজনকে রিমান্ডে নিতে আদালতে আবেদন করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাতে সুনামগঞ্জ আদালতে আওয়ামী লীগ নেতা পৌর কাউন্সিলর তাপস চৌধুরী, সাদমান মাহমুদ সানি, বোমাকারক আলাউদ্দিন, হাজি বুলবুল, কোহিনুর চৌধুরীকে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা।

তাদের বিরুদ্ধে নৌপথে চাঁদাবাজি, হামলা, শ্রমিক নির্যাতন অবৈধ ড্রেজার দিয়ে বন বিভাগের জায়গা দখল হামলা ওসি এসআইসহ ৬ জন পুলিশকে মেরে নদীতে নিপেক্ষ করার অভিযোগ রয়েছে।

জানা গেছে, বাল্কহেড ও ড্রেজার স্থাপন করে সুরমা ও চেলা নদীর তলদেশ থেকে বালু ও পাথর উত্তোলনকালে আটককৃত বালুভর্তি ৪টি বাল্কহেড ৯টি বোমা মেশিন জব্দ করায় নৌপুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ওসি, এসআইসহ ৬ জন পুলিশকে মেরে নদীতে নিপেক্ষ করে তাপস ও আলাউদ্দিন সন্ত্রাসী চত্রু।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা জানান, নৌপুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা, মারপিট করে ৪টি হাতকড়া, ১১টি মোবাইল, নগদ ৮০ হাজার টাকা নৌপুলিশের গুরুত্বপূর্ণ ফাইল, জব্দকৃত বালু ভর্তি ৪টি বাল্কহেড, ৯টি বোমা মেশিন ছিনতাইয়ের অভিযোগে মামলা হয়েছে। এ মামলায় রিমান্ড শুনানি পরে অনুষ্ঠিত হবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, গত ৪ জুলাই সন্ধ্যায় উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের নিয়ামতপুর গ্রামের সামনে চেলা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি যুগান্তর অনলাইন প্রকাশিত হলে দেশ বিদেশে ব্যাপক ভাইরাল হয়েছিল।

সিলেট জোনের নৌপুলিশ এসপি শম্পা ইয়াসমীন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x