ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন
আইন লঙ্ঘন করে ঈদের নামাজ-চার দিনের রিমান্ডে ৪৮ বাংলাদেশি
দৈনিক ডাক অনলাইন ডেস্ক

মালয়েশিয়ায় স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং সিস্টেম (এসওপি) লঙ্ঘন করে ঈদ-উল আযহা’র নামাজ আদায় করায় গতকাল ৪৮ প্রবাসী বাংলাদেশীসহ স্থানীয় একজন নাগরিককে আটক করে আদালতে সোপর্দের পর চার দিনের রিমান্ডে নিয়েছে দেশটির পুলিশ। সূত্র : দ্যা স্ট্রেইট টাইমস্

আজ বুধবার (২১ জুলাই) সকাল ১০ টায় ৩ টি লড়িতে করে অভিযুক্তদের আদালতে সোপর্দ করার পর বুকিত মারতাজাম ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সহকারী রেজিস্ট্রার হাসলিজা রাজাক এই রিমান্ডের আদেশ দেন।

এর আগে মঙ্গলবার (২০ জুলাই) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টায় পেনাং রাজ্যের জুরু তামান পেলাংগি মসজিদে ঈদ-উল আযহা’র নামাজ আদায় করতে গেলে কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে একশ মানুষকে নামাজ আদায়ের জন্য প্রবেশের অনুমতি দেয়।

এ সময় মসজিদে ১০০ জন মুসল্লি পূরণ হয়ে যাওয়ায় প্রায় দুই শতাধিক প্রবাসী মসজিদের বাইরে ঈদের নামাজ আদায় করে। যাদের বেশিরভাগই বাংলাদেশি। সেই ২০০ জনকে এখন খুঁজছে পুলিশ। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ঈদের নামাজ আদায়ের এ ঘটনায় সমালোচনায় পড়েছে প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সরকারের বেধেঁ দেয়া আইন অমান্য করে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করে নামাজ আদায়ের এ দৃশ্যের ভিডিও স্থানীয় একজন নাগরিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আপলোড করার সাথে সাথে ছড়িয়ে পড়ে। শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। পরে অভিযান চালিয়ে ৪৮ বাংলাদেশীসহ মোট ৪৯ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এদিকে, দুই শতাধিক মানুষের নামাজ আদায়ের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর রাজ্য জুড়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে স্থানীয় প্রশাসন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনায় স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গের ঘটনায় রাজ্যের পুলিশ প্রধান এ জন্য ক্ষমা চান। এর পরেই শুরু হয় আইন লঙ্গনকারীদের গ্রেফতারের অভিযান।

এ ঘটনায় আইন লঙ্গন কারিদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজা জয়নুদ্দিন বলেন, প্রয়োজনে এসব অভিবাসীদেরকে দেশে পাঠানো হবে বলেও কড়া নির্দেশনা দেন

3 responses to “আইন লঙ্ঘন করে ঈদের নামাজ-চার দিনের রিমান্ডে ৪৮ বাংলাদেশি”

  1. … [Trackback]

    […] Read More to that Topic: doinikdak.com/news/38801 […]

  2. … [Trackback]

    […] Read More Info here on that Topic: doinikdak.com/news/38801 […]

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x