ঢাকা, রবিবার ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন
দক্ষিণ সুরমা শিববাড়ি এলাকায় দুই সহোদরকে ছিনতাই, গ্রেফতার ৩
রুবেল আহমদ সিলেট

দক্ষিণ সুরমা শিববাড়ি এলাকায় দুই সহোদরকে ছিনতাই, গ্রেফতার ৩

সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় মোগলাবাজার থানাধীন শিববাড়ি এলাকায় দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে ছিনতাই করে মোবাইল-টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় করেছে ছিনতাইকারীরা। এ ঘটনায় সোমবার মোগলাবাজার থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুইটি মোবাইল ও তিন ছিনতাইকারীকে আটক করেন।

রোববার (১৮ জুলাই) রাত ৮ ঘটিকায় শিববাড়ি এলাকায় এ ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তীতে ভুক্তভোগী রাহাত রহমান ফাহিম (২১) মোগলাবাজার থানায় অজ্ঞাতনামা একটি মামলা দায়ের করেন। থানার মামলা নং-১৩, আজ সোমবার,

রাহাত রহমান ফাহিম জকিগঞ্জ উপজেলার শাহবাগ গ্রামের এমএ মুমিন এর ছেলে। এয়ারপোর্ট থানাধীন সুবিদ বাজার লন্ডনি রোড এলাকার বাসা নং-০২ এর বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, ফাহিম তার বড় ভাই মুরাদ রহমান নাঈম এর সাথে মোটরসাইকেল যোগে গরু ক্রয় করার জন্য মোগলাবাজার থানাধীন হাজিগঞ্জ বাজার উদ্দেশ্যে রওনা করেন। হুমায়ুন চত্বর হতে মোটরসাইকেল ড্রাইভিং করে তার পিছনে বড় ভাই মুরাদ রহমান নাঈমকে নিয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ যাওয়া কালে মোগলাবাজার থানাধীন ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কের শিববাড়ি নামক স্থানে পিছন দিক থেকে এসে একটি সিএনজি অটোরিক্সা যোগে ৫ ব্যক্তি তাদেরকে গতিরোধ করে আতংক সৃষ্টি করে এবং তাদের নিকট যা আছে সব কিছু দিয়ে দেওয়ার জন্য বললে তারা দিতে  অপারগতা প্রকাশ করেন। পরে ওই ছিনতাইকারীরা তাদেরকে কিল, ঘুষি মারে ও ভয় দেখিয়ে আতংক ও ত্রাস সৃষ্টি পূর্বক তার ব্যবহৃত ২৬ হাজার টাকা মূল্যের একটি ও ১৫ হাজার টাকা দামের মোট দুইটি মোবাইল পকেটে থাকা নগদ টাকা নিয়ে তাদেরকে এলোপাথারী ভাবে আঘাত করে মাথা, বুক, হাত, পায়ে জখম করে আতংক সৃষ্টি করে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

পরে রাহাত রহমান ফাহিমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মোগলাবাজার থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহজাহান ভূঁইয়ার দিক নির্দেশনায় অফিসার ইনচার্জ মোঃ শামসুদ্দোহা পিপিএম এর নেতৃত্বে এসআই শিপু কুমার দাস, এএসআই আব্দুল জলিল সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করে তিন ছিনতাইকারীকে আটক করেন।

আটককৃতরা হলেন, মোগলাবাজার থানাধীন গঙ্গানগর গ্রামের রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে জাওয়াদ ইসলাম অর্নব (১৯), শাহপরাণ (রঃ) থানাধীন লালঘাটংগী গ্রামের জাহিদ আহমদের ছেলে শিপন রহমান (২২) ও শাহপরাণ (রঃ) থানাধীন কল্লাগ্রাম এলাকার বাসিন্দা মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে শাহেদ আহমদ (২৩)। তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত দুইটি মোবাইল উদ্ধার এবং তাদেরকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x