ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০৫ অপরাহ্ন
ঈদগাঁওতে করোনা টেস্টের রিপোর্ট আসার আগে একজনের মৃত্যু : সবর্ত্রই শোকের ছায়া 
স্টাফ রিপোটার,ঈদগাঁও 
দৈনিক ডাক: সপ্তাহ ধরে জ্বর আর কাশিতে ভোগতে থাকা তিন সন্তানের জনক ফারুক ৮ জুলাই সকালেই রামু হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল জমা দেন। সন্ধ্যায় রিপোর্ট পাওয়ার আগেই দুপুরে মৃত্যু হয় ঈদগাঁওর পরিচিত মুখ  ফারুক ওরফে পেপার ফারুক। তিনি ঈদগাঁওর উত্তর মাইজপাড়ার মুক্তিযোদ্ধা মরহুম মীর আহমদের পুত্র। আকস্মিক মৃত্যুতে সর্বত্রই শোকের ছায়া বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
স্থানীয় মেম্বার বজলুর রশিদ জানান, ফারুক ৫/৬ দিন ধরে অসুস্থ ছিল। জ্বর কাশিতে ভোগছিল। এক সপ্তাহেও অসুস্থতা নিরাময়ের লক্ষণ দেখা না দেয়ায় বৃহস্পতিবার সকালে রামু করোনা হাসপাতাল ইউনিটে পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল জমা দেন। রিপোর্ট পেতে সন্ধ্যা হবে বলায় রামু তার এক বোনের বাড়িতে অবস্থান করছিল। হঠাৎ অসুস্থতা এবং বুক ব্যথা অনুভব করায় তাকে বাড়িতে পৌঁছে দিতে বলে। পথি মধ্য ব্যাথা বেড়ে যাওয়ায় একটি প্রাইভেট হাস পাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জরুরী ভিত্তিতে সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলে। নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। একইদিন সন্ধ্যা ৬টা মেহেরঘোনা ইউনুছিয়া মাদ্রাসার মাঠে জানাযা সম্পন্ন হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x